সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
রূপসী পাড়ায় হত-দরিদ্র ও কর্মহীন পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ- কুষ্টিয়ায় দৌলতপুরে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা করার পরও চালিয়ে যাচ্ছে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন- কুষ্টিয়া এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী কামরুজ্জামানের বিরুদ্ধে অবৈধ অর্থ উপার্জনের অভিযোগ- নওগাঁ রানীনগরে রেলওয়ে জায়গার দোকান ঘর উচ্ছেদে প্রায় ১৬ কোটি টাকার ক্ষতি পথে বসেছে ২৮৪ পরিবার- কুড়িগ্রামে মহিলা পরিষদের নারী ধর্ষণ ও হত্যার প্রতিবাদে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন- কালিয়ায় বালু ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা- দশমীর চিকিৎসায় আবারো আর্থিক সহায়তা দিলেন লৌহ মানব মোহাম্মদ আলী চৌধুরী- ঢাকায় শুভ হত্যার রহস্যের সুষ্ঠু তদন্ত দাবি কালীগঞ্জে মানববন্ধন- কৃষি বিল নিয়ে মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছেন বিরোধীরা-বিজেপি নেতা জয় প্রকাশ মজুমদার কালীগঞ্জে সরকারি চাকরি দেওয়ার নামে তপন সাধুর প্রতারণা! কুষ্টিয়ার দাদা রাইস ব্রান্ডের নামে বরিশাল বাজারে যাচ্ছে নিন্মমানের চাল-
ঘোষণা:

‘বাবা’র সঙ্গে কথাটা শেষ হলো না-আইরিন

অনলাইন ডেস্ক নিউজ,সময়ের পথঃ-

সাদেক বাচ্চু আংকেল এই সেপ্টেম্বরের ৪ তারিখে আমাকে ফোন দিয়েছিলেন। তখন আমি বাইরে, আমি বললাম- আংকেল আমি তো বাইরে। বাসায় গিয়ে ফোন দিচ্ছি। সেদিন বাসায় ফিরতে অনেক রাত হয়ে গেছে। আর তার পরদিনও ফোন দেওয়া হলো না। পরে আমি যখন ফোন দিলাম, তখন তিনি হাসপাতালে। ফোন কেউ ধরল না। উনি আমাকে শেষ কী বলতে চেয়েছিলেন আমি জানি না। এখন আফসোস লাগছে, জানি এই আফসোসটা চিরদিনই থেকে যাবে।
সদ্যঃপ্রয়াত সাদেক বাচ্চু সম্পর্কে বলতে গিয়ে এভাবেই সাংবাদিক কে বাষ্পরুদ্ধ কণ্ঠে বলছিলেন চিত্রনায়িকা আইরিন।
আইরিন বলেন, ‘অবশ্য সাম্প্রতিক সময়ে সাদেক বাচ্চু আংকলের সঙ্গে অনেক কথা হতো। গত বছরের নভেম্বরে মুক্তি পায় পদ্মার প্রেম। এটা জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের জন্য জমা দেওয়া হয়। এই চলচ্চিত্রের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা হতো। করোনার সময় ঘণ্টার পর ঘণ্টা কথা বলেছি। সব অভিনয়ের বিষয়ে কথা। অথচ সর্বশেষ যেটা বলতে চেয়েছিলেন সেটাই বলা হলো না, কিংবা আমার শোনার সৌভাগ হলো না।’
সাদেক বাচ্চুর সঙ্গে আইরিন প্রথম ভালোবাসা জিন্দাবাদ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। যেখানে তাঁর বাবা ছিলেন সাদেক বাচ্চু। এরপর পদ্মার প্রেমসহ আরো দুটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন আইরিন। যার প্রতিটি ছবিতেই বাবার চরিত্রে অভিনয় করেছেন এই অভিনেতা।

আইরিন বলেন, ‘তিনি বাবার চরিত্রে অভিনয় করেছেন আমার প্রতিটি ছবিতেই। আমাকে একেবারে মেয়ের মতো দেখতেন। বাবার মতোই স্নেহপূর্ণ কথা বলতেন। তিনি শুধু অভিনেতাই নন, একজন শিক্ষক। আমরা যারা অভিনয় না শিখেই এই জগতে চলে আসি, তাদের তিনি হাতে-কলমে অভিনয় শিখিয়ে দিতেন। কোনোভাবেই, কখনোই বিরক্ত হতেন না। এই স্কুলিংটা আমরা আর কারো কাছ থেকে সেভাবে পাব না।

জনপ্রিয় অভিনেতা সাদেক বাচ্চু মারা গেছেন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মহাখালীর ইউনিভার্সেল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টা ৫ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

ইউনিভার্সেল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. আশীষ কুমার চক্রবর্তী এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, সোমবার সকাল থেকেই তাঁর হার্টবিট বন্ধ হয়েছে বেশ কয়েকবার। অবশেষে ১২টা ৫ মিনিটে মৃত্যুবরণ করেন বরেণ্য অভিনেতা সাদেক বাচ্চু ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমাদের অনুসরণ করুন