বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:৪০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
রূপসী পাড়ায় হত-দরিদ্র ও কর্মহীন পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ- দেশে করোনার সেকেন্ড ওয়েভ শুরু হয়ে গেছে- হাওড়া মংলা হাটের ফুটপাথ ব্যবসায়ী সমিতি সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামলেন- ডাকাতদলে আওয়ামী লীগ নেতা চেয়ারম্যান প্রার্থী! মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপি সাথে কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসি’র মতবিনিময় সভা- রোয়াংছড়িতে নারী ও শিশু উন্নয়নের সচেতনামূলক যোগাযোগ শীর্ষক কার্যক্রম কর্মশালা- চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার মহাসড়ক সংস্কারের মহাপরিকল্পনা হাতে নিচ্ছে সরকার- মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপির সাথে নবগঠিত কুষ্টিয়া জেলা ইউনাইটেড অনলাইন প্রেসক্লাবের সৌজন্য সাক্ষাৎ- স্থায়ীকরণের দাবীতে উচ্চ মাধ্যমিক ও মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকারা আন্দোলনে নামলেন- কুষ্টিয়ায় খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির কার্ড বিতরণে অনিয়ম: গরিবের চাল ধনীদের পেটে- ইউপিডিএফের ঐক্যের ডাক জুম্ম স্বার্থপরিপন্থি রাষ্ট্র ও শান্তিচুক্তি বিরোধীতার শামিল-
ঘোষণা:

৯৯৯ নম্বরে ফােন, প্রানে বাঁচলেন স্বামী-স্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার হাসিবুর রহমান,সময়ের পথঃ-

বাগেরহাটের শরনখােলায় জমি-জমা নিয়ে বিরােধকে কেদ্র করে ঘুমিয়ে থাকা স্বামী-স্ত্রীর উপর হামলা চালিয়ে তাদের বসত ঘর গুড়িয়ে মালামাল লুটে নিয়েছে প্রতিপক্ষরা।

ঘটনাটি ঘটেছে ১৮জুলাই শনিবার গভীর রাতে সুন্দরবন সংলগ্ন উপজেলার খুড়িয়াখালী গ্রামে। এ সময় গৃহকর্তী শামসুনাহার ৯৯৯ এ ফােন কর প্রানে বাঁচার আকুতি জানায়। শরনখােলা থানা পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থলে অভিযান চালালে হামলা কারীরা পালিয়ে যায়।

ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার ও এলাকাবাসীর সুত্র জানায়, উপজেলার ৪নং সাউথখালী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের খুড়িয়াখালী গ্রামের বাসিন্দা কৃষক আঃ মালেক মুন্সী উত্তরাধিকার সুত্রে প্রাপ্ত ১১নং সােনাতলা মৌজার ১৯৮০ নং খতিয়ানের ৫২৯১নং দাগের ২৫শতাংশ জমিতে দীর্ঘদিন ধরে পরিবার পরিজন নিয়া বসবাস করে আসছেন।

সম্প্রতি উক্ত সম্পত্তি জাের পুর্বক দখলের জন্য প্রতিবেশি মােঃ সাইয়েদ বয়াতী, করিম বয়াতীসহ একটি চক্র কৃষক আঃ মালেক ও তার পরিবারকে নানা ভাবে হয়রানী শুরু করেন। কােন ভাবেই বসত ভিটা দখল নিতে না পারায় একই ইউনিয়নের বাসিদা বাচ্চু মীর ও তার ছেলে রুমান মীরের সহযােগীতায় শনিবার গভীর রাতে করিম বয়াতী, সাইয়েদ বয়াতী, আবাস জােমাদ্দার ও নজরুল শিকদারের নেতৃত্বে ২৫/৩০ জনের একটি দল মালেকের বাড়ি ঘরে হামলা চালায়।

মালেকের স্ত্রী শামসুনাহার (৬৫)বলেন, প্রতিদিনের মত রাতের খাবার শেষে আমরা ঘুমিয়ে পড়ি। রাত আনুমানিক দেড়টায় বাহিরে ব্যাপক ভাংচুরের শব্দ শুনে হঠাৎ ঘুম ভেঙ্গে যায়।

এ সময় আমরা ডাকাত বলে চিৎকার দিলে সাইয়েদ ও করিম সহ কয়েক জন ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঘরে প্রবেশ করে আমার স্বামীকে মারপিট আরম্ভ করেন এবং বারাদায় ঘুমিয়ে থাকা নাতি শিমুল (১৮) কে তুলে নিয়ে বাহির ছুঁড়ে ফেলে। ওই সময় আমি আমার স্বামীকে বাঁচাতে গেলে আমাকেও মারপিট করে গুরুতর আহত করে। এক পর্যায় ঘর ছেড়ে বাহিরে যাই এবং জীবন বাঁচাতে ৯৯৯ এ ফােন করি। ঘন্টাখানেক পর শরনখােলা থানা পুলিশের একটি দল আসলে আমরা প্রানে বেঁচে যাই। ততক্ষনে সকল মালামাল লুট করে ঘরটি সহ বাড়ির গাছপালা সম্পুর্ন মাটির সাথে মিশিয়ে দেয় হামলাকারীরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমাদের অনুসরণ করুন