শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ০৩:২৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
ঈদ-এ মিলাদুন্নবী শোভাযাত্রা নিয়ে সংশয়ে আছেন কমিশনার! নড়াইলের পল্লীতে সরকারি টেন্ডার ও চিঠি ছাড়া রাস্তার গাছ কাটলো কারা কুষ্টিয়া পৌর মেয়র হিসেবে আতাউর রহমান আতার কোনো বিকল্প নেই সাইফুদ দৌলা তরুণ। সিলেটগামী ট্রেনের সিডিউল হঠাৎ বাতিল!! কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভুয়া সনদ বিক্রির অন্তরালে জড়িত কারা উদঘাটন জরুরী- জামিন পেলেন সব হারানো সাহসী সাংবাদিক ফরিদুল মোস্তফা ওসি প্রদীপের মিথ্যা সাজানো সকল মামলা থেকে- খুলনায় স্কুলছাত্রী লামিয়া গুলিবিদ্ধ- একুশে পদক প্রাপ্ত প্রখ্যাত সাহিত্যিক, সাংবাদিক রাহাত খানের মৃত্যুতে জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শোক বিশ্বাসপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে-আবিদা আজাদ প্রতারক মকলেচ কুষ্টিয়া ডিবি পুলিশের হাতে আটক-
ঘোষণা:

জেলা প্রশাসকের নির্দেশকেও করছে অবজ্ঞা জোঁড়াতালি দিয়ে চলছে কুষ্টিয়া জেলা মৎস্য অফিস-

কে এম শাহীন রেজা কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি,সময়ের পথঃ-

কুষ্টিয়া জেলা মৎস্য অফিসার ড. মো: মাহবুবুর রহমান তালুকদার অসুস্থ্যতার অযুহাত দেখিয়ে নিয়মিত অফিসে না আসা বা ইচ্ছামতো সময়ে অফিসে আসা সহ নানা অনিয়মের মধ্য দিয়ে জোঁড়াতালি দিয়ে চলছে কুষ্টিয়া জেলা মৎস্য অফিস। সেবা গ্রহীতাদের হয়রানি ও সেবা না পাওয়ার ঘটনা ঘটছে প্রতিনিয়িত।
নানা অযুহাতে কালক্ষেপন ও অনিয়মই হয়ে উঠেছে কুষ্টিয়া জেলা মৎস্য অফিসের মূলনীতি। বার বার অফিসে গিয়েও মেলেনি দেখা কুষ্টিয়া জেলা মৎস্য অফিসারের, দেখা মেলে শুধু দরজায় ঝোঁলানো তালা। ক্ষোভ থাকলেও ক্ষ্যান্ত সবাই, কারন তিনি বড়কর্তা। করেন না কাউকে তোয়াক্কা, তাই জেলা প্রশাসকের তদন্তের নির্দেশও করেছেন অবজ্ঞা। ঘটেছে এমনও ঘটনা কুষ্টিয়ার ইবি থানার মনোহরদিয়া ইউনিয়নের রাধানগর মরানদীর জলমহল ইজারা দেওয়ার বিষয়ে জেলা সমবায় অফিসারের আপত্তির প্রেক্ষিতে ইজারা আবেদনকারী সমিতির সদস্যরা সবাই প্রকৃত মৎস্যজীবি কি না? জানতে তদন্ত কমিটি করে জেলা প্রশাসক। এই তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় জেলা মৎস্য অফিসার ড. মো: মাহবুবুর রহমান তালুকদারকে। দীর্ঘদিনেও শেষ হয় না তদন্ত। দাঁড় করান করোনা ও অসুস্থ্যতার অযুহাত। জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে দ্বিতীয় বারের মত তদন্তের নোটিশ করা হয় তাকে। তবুও শেষ হয় না তদন্ত। সর্বশেষ গত ২৪শে জুলাই ২০২০ইং তারিখে ৩য় বারের মত জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে জেলা মৎস্য কর্মকর্তাকে আহবায়ক করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। সেই তদন্ত সম্পূর্ণ হলেও তদন্তের মাঠে উপস্থিত ছিলেন না কুষ্টিয়া জেলা মৎস্য অফিসার ড. মো: মাহবুবুর রহমান তালুকদার। তার স্থলে পাঠিয়েছিলেন উপজেলা মৎস্য অফিসারকে। এভাবেই দায়সারা কাজ ও অব্যবস্থাপনার মধ্য দিয়েই নানা অনিয়মে চলছে কুষ্টিয়া জেলা মৎস্য অফিস। এ বিষয়ে কুষ্টিয়া জেলা আসলাম হোসেনের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তা সম্ভব হয়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমাদের অনুসরণ করুন