1. admin@somoyerpoth.com : somoyerpoth.com :
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৩০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
নওগাঁ টিটিসিতে বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা দেশকে এগিয়ে নিতে সাহায্য করে-খাদ্যমন্ত্রী স্বপ্ন পূরক ব্লাড ডোনেশন এর উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পিং হরিণাকুণ্ডুতে বিভিন্ন মামলার ১১ আসামি গ্রেপ্তার রাজারহাটে জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদকের তিস্তার ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন, সিলেট নগরীর বাগবাড়ী নরশিংটিলায় তীব্র পানির সংকট, সংকট নিরসনে নেই কোন পদক্ষেপ সাতক্ষীরায় মোবাইলে এস,এম ,এস দিয়ে ডেকে নিয়ে ছাত্রীকে ধর্ষনের পর হত্যা কুষ্টিয়ায় দুর্বৃত্তের গুলিতে জামাত নেতা মোস্তফার সহযোদ্ধা খুন -আটক -৪ রাস্তাজুড়ে খানাখন্দ, কাদাপানিতে দুর্ভোগ তিন গ্রামের মানুষের সাংবাদিক মহিউদ্দিন শিরু’র ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী শনিবার কুষ্টিয়ায় র‍্যাবের অভিযানে পিস্তল,গুলি, জাল টাকা সহ মাদক ব্যবসায়ী আরজু গ্রেফতার

তামিম বাহিনীর বিদায় ফাইনালে শান্ত আর রিয়াদের দল

বিশেষ সংবাদদাতা
  • প্রকাশিত: বুধবার, ২১ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩২ বার পড়া হয়েছে

পারলো না তামিম ইকবালের একাদশ। শেষ পর্যন্ত নাজমুল হোসেন শান্ত আর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দলই পৌঁছে গেলো ফাইনালে।

বৃষ্টির কারলে ডিএল মেথডে তামিম বাহিনীর টার্গেট ছিল ১৬১; কিন্তু ৪১ ওভারে ওই টার্গেটও ছুঁ’তে পারেনি তামিম একাদশ। ১৫৬ (৪০.৪ ওভারে) রানেই থেমে গেছে তারা।

৭ রানে জিতে রাউন্ড রবিন লিগের চার (ডাবল লেগের) ম্যাচের তিনটিতে জিতে সবার ওপরে থেকে ফাইনালো উঠলো শান্তর দল। অন্যদিকে সমান খেলায় ২ জয়ে রিয়াদ বাহিনীরও ফাইনাল নিশ্চিত হলো। একমাত্র জয় নিয়ে বিদায় নিল তামিম একাদশ।

প্রতিপক্ষ শান্ত বাহিনী অলআউট হয়েছে ১৬৫ রানে। তবে বৃষ্টি আইন ডিএল মেথডে তামিম বাহিনীর টার্গেট দাঁড়ায় ৪১ ওভারে ১৬৪ রান।

৪১ ওভারে ওই লক্ষ্য মানে ওভার পিছু ৪ রানেরও কম। এই হিসাব-নিকাশ সামনে রেখে যেমন ব্যাটিং দরকার ছিল, তা পারেননি তামিম বাহিনীর ব্যাটসমানরা। অধিনায়ক তামিম প্রাণপন চেষ্টা করেছেন দলকে জেতাতে। কিন্তু পারেননি।

শুরুটাই ভাল হয়নি। ১০ রানে উদ্বোধনী জুটি ভাঙ্গার পর তরুণ মাহিদুল ইসলাম অংকনকে নিয়ে ভালই এগুচ্ছিলেন তামিম। আগের তিন ম্যাচে (২+৩৩+৯) রান পাননি। আজ তামিম চেষ্টা করেছেন দল জিতিয়ে মাঠ ছাড়তে।

কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। ৮৫ বলে ৫৭ রানে তামিমকে ফিরিয়ে দিয়েছেন আবু জায়েদ রাহী। অফ স্ট্যাম্পের অনেক বাইরের বল মারতে গিয়ে কট বিহাইন্ড হয়েছেন তামিম।

কিন্তু অংকন (৪৫ বলে ২২) আর ইয়াসির আলী রাব্বি (৩৪ বলে ৬) বেশি স্লো ব্যাটিং করায় ওভার পিছু রানের গতি বেড়ে যায়। শেষ দিকে মিঠুন (৩২ বলে ২৯) আর সাইফউদ্দীন (৯ বলে ১০) প্রাণপন চেষ্টা করেও আর পারেননি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত