1. admin@somoyerpoth.com : somoyerpoth.com :
শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৯:১৯ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
কুষ্টিয়ায় শত-শত কর্মী নিয়ে ব্যান্ড বাজিয়ে বিতর্কিত নৌকা প্রার্থীর মনোনয়ন জমা কুষ্টিয়ায় ১০ নং উজানগ্রাম ইউপি আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত তুমুল ভোট-যুদ্ধের আভাস সদরের মোগলবাসা ইউনিয়নের নির্বাচনে। হরিণাকুণ্ডুতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত কুড়িগ্রাম জেলায় বাল্যবিয়ে বেড়েছে ৭৪ শতাংশ হরিণাকুণ্ডুতে ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হরিণাকুণ্ডুতে উপজেলা পরিষদ সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত প্রচার-প্রচারণায় ব্যাস্ত সময় পার করছেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য প্রার্থী শ্রীমতি মাধবী রাণী। সিলেটে অবৈধ দখল ও বজ্যের চাপে বিপর্যস্ত সুরমা নদী নিখোঁজের চার দিন পর ডোবা থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার।

কালিয়ার ইলিয়াছাবাদ ইউপিতে নৌকা ও আনারস সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: রবিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০২১
  • ৮৮ বার পড়া হয়েছে

কালিয়ার ইলিয়াছাবাদ ইউপিতে নৌকা ও আনারস সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ ও পাল্টাপাল্টি অভিযোগ, পুলিশের কঠোর হুশিয়ারী!

মোঃ হাচিবুর রহমান,কালিয়া( নড়াইল) প্রতিনিধিঃ

নড়াইলের কালিয়া উপজেলার ইলিয়াছাবাদ ইউনিয়নে নৌকা ও আনারশ প্রতীকের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ ও পাল্টাপল্টি অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ৭-৮ জন আহত হয়েছে। ১৩ নভেম্বর (শনিবার) সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় কুঞ্জপুর স্কুল মাঠে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, ওই দিন সন্ধ্যাায় মুক্তিযোদ্ধা ফিরোজ মল্লিকের নৌকা প্রতীক ও উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং সাবেক চেয়ারম্যান মল্লিক মনিরুল ইসলামের আনারশ প্রতীকের সমর্থকদের মধ্যে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়।
এ সময় নৌকা প্রতীকের ফিরোজ মল্লিক জানান, নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী প্রচারনা চালানোর কার্যালয় পরিদর্শনের জন্য আমি সমর্থকদের নিয়ে নির্বাচনী অফিসে যাই। এমতাবস্থায় আনারশ প্রতীকের মল্লিক মনিরুল ইসলাম তার সমর্থকদের নিয়ে নির্বাচনী প্রচারনায় যান। এ সময় উভয় পক্ষের কর্মী সমর্থকদের বাকবিতন্ডা হয় এবং সংঘর্ষে রূপ নেয়। আনারশ প্রতীকের মল্লিক মনিরুল ইসলাম জানান, আমরা আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত এবং দীর্ঘদিন যাবৎ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আসছি। কিন্তু নৌকা প্রতীকের ফিরোজ মল্লিক সদ্য বিএনপির ইউনিয়ক আহ্বায়ক কমিটির সাধারণ সম্পাদক মাহাবুর শেখ ও সাবেক ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নাজমুলকে সাথে নিয়ে আমার কর্মী সমর্থকদের ওপর অতর্কিত আক্রমন করেন। এ সময় আংশিক সংঘর্ষ হয়। আমি প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও সাংবাদিকদের মাধ্যমে প্রশান রাখতে চাই যে, বিএনপির পদধারী নেতাকর্মীরা নৌকার ছায়াতলে এসে আমার কর্মীদের ওপর কেন হামলা করলো? তদন্তপূর্বক এর সঠিক বিচার কামনা করছি।
এ বিষয়ে এএসপি (কালিয়া সার্কেল) ও কালিয়া থানার অপিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ কনি মিয়া বলেন, সংঘর্ষের সংবাদ পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি এবং উভয় পক্ষকে নির্বাচনী আচারন বিধি লংঘন না করার জন্য কঠোর হুশিয়ারী প্রদান করেছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত